অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করার নিয়ম ২০২৩

তথ্য প্রযুক্তি
নানাবিধ সঙ্গত কারনবশত সাধারন মানুষ থানায় যেতে বিব্রতবোধ করে থাকে। তথ্য প্রযুক্তি আজ মানুষকে সেই বিড়ম্বনা থেকে মুক্তি দিয়েছে । আপনার যদি অনলাইনে জিডি করার নিয়ম সঠিকভাবে জানা থাকে তাহলে আপনাকে আর থানায় যেতে হবে না। ঘরে বসেই করতে পারবেন সাধারন ডায়েরী / জিডি বা এফ আই আর এর গুরুত্বপূর্ন কাজগুলি।
জানতে চান কিভাবে ড্রাগ লাইসেন্স করা যায়
তাই আপনি যদি জানতে চান কিভাবে থানায় না গিয়ে ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করতে হয় তাহলে আপনি একেবারে সঠিক জায়গাতেই এসেছেন।
আপনার হারানো বা প্রাপ্তী সংক্রান্ত জানমালের বিষয় সহ যে কোন বিষয়ে পুলিশের নিকট জিডির জন্য আবেদন জানতে online gd apps অথবা gd.police.gov.bd নামক ওয়েব সাইটটি ব্যবহার করতে পারবেন।
আজকের পোষ্টে আমরা দেখবো স্টেপ বাই স্টেপ অনলাইনে জিডি করার নিয়ম। তাহলে আর দেরী কেন ? আসুন দেখে নিই অনলাইনে জিডি করার জন্য আপনার কি কি লাগবে।

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

প্রথমত আপনি online gd এর এন্ড্রোয়েড এপসের মাধ্যমে ইউজার হিসাবে রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে।
আগে থেকে ইউজার হিসাবে রেজিষ্ট্রেশন করা থাকলে তার ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড জানা থাকতে হবে।
পূর্ব থেকে যদি আপনার রেজিষ্ট্রেশন করা থাকে তাহলে এন্ড্রোয়েড online gd এপসটি ছাড়াও যেকোন ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করে অনলাইনে জিডি করতে পারবেন।
পরবর্তীতে সংশ্লিষ্ট থানা থেকে আপনাকে ফোনে অথবা ইমেইলে ফিডব্যাক দেওয়া হবে।
আপনার দায়েরকৃত অভিযোগটি যদি জিডির যোগ্য হয় তাহলে সেটির জিডি নং এবং তদন্তকারী অফিসারের বিবরনীসহ ডিজিটাল জিডির কপি ফোন এসএমএস বা ইমেইলের মাধ্যমে প্রেরন করা হবে।
আপনার অভিযোগের বিষয়টি যদি মামলার যোগ্যা (আমলযোগ্য অপরাধ)  হয় সেক্ষেত্রে দায়েরকৃত ডিজিটাল জিডির প্রিন্ট কপি সহ অথবা অভিযোগের কোড নং সহ আপনাকে থানায় উপস্থিত হতে হবে।

অনলাইনে জিডি করতে কি কি লাগে

একজন সাধারন নাগরিক ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করতে চাইলে কিছু জিনিষ থাকতেই হবে।
  • জাতীয় পরিচয় পত্র
  • একটি সচল মোবাইল নাম্বার এবং একটি স্মার্টফোন
  • আপনার লাইভ ছবি

অনলাইনে জিডি করার প্রক্রিয়া (স্টেপ বাই স্টেপ)

মোট ৩ টি ধাপে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে অনলাইনে জিডি করার সুযোগ রাখা হয়েছে।
যে কোন বাংলাদেশী নাগরিক, যার জাতীয় পত্র বা জন্ম নিবন্ধন আছে তারা তাদের এক‌টি মোবাইল নাম্বার ব্যবহার করে ঘরে বসেই অনলাইনে জিডি করতে পারবে।
প্রথম ধাপে আপনাকে একজন ইউজার হিসাবে রেজিস্ট্রেশন করে লগ ইন করতে হবে।
আপনি যদি ইতিপূর্বে রেজিস্ট্রেশন না করে থাকেন তাহ‌লে প্রথমেই আপনাকে Online Gd নামক এন্ড্রোয়েড এপস দ্বারা রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।
তার পর বাকী কাজ গুলো আপনি অনলাইন জিডি এপস দ্বারা অথবা ওয়েব পোর্টাল থেকে সম্পন্ন করতে পারবেন।
Google play store থেকে online gd এপসটি লিংকে ক্লিক করে ইন্সটল করে নিতে পারবেন।
অথবা গুগল প্লে ষ্টোরের সার্চ বারে online gd লিখে সার্চ দিলে নিচের ছবির মতো আপনি দুইটা online gd নামের এপস দেখতে পাবেন।
২ টি এপস আপনার এন্ড্রোয়েড ফোনে ইন্সটল করুন। ইন্সটল প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে এবার এপসটি খুলুন।

 

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

এপসটি ইন্সটল প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে এবার সদ্য ইনস্টল করা Online Gd এপসটি ওপেন করুন।
নিচের ছবির মতো পূর্বে রেজিস্ট্রেশন করা থাকলে রেজিস্ট্রেশন এ ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বার এবং আপনার সংরক্ষিত পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে লগ ইন করুন।

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

পূর্ব থেকে ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড থাকলে সেটা দিয়ে লগ ইন করুন। নতুন ইউজার হলে “নিবন্ধন করুন” বাটন চাপুন,

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

এবার জাতীয় পরিচয় পত্র যাচাই পৃষ্ঠা আসবে সেখানে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার, জন্ম নিবন্ধন অথবা পাসপোর্ট নাম্বার এবং জন্ম তারিখ সঠিকভাবে প্রদান করুন।
সিস্টেম আপনাকে অনলাইন ভেরিফিকেশন হয়ে পরের পৃষ্টায় নিয়ে যাবে। যেখানে আপনার যাবতীয় তথ্য গুলো দেখতে পাবেন।
নিচের দিকে শুধু আপনার বর্তমান ঠিকানা লিখে “পরবর্তী ” ট্যাবে চাপ দিন। পরের পৃষ্টায় আপনার লাইভ ছবি তোলার জন্য সিস্টেম আপনার কাছে ক্যামেরা পারমিশন চাইবে।
“Allow ” তে চাপ দিন, এবার আপনার লাইভ ছবি তোলার জন্য ক্যামেরা চালু হবে। ফেসটা মাঝখানে রেখে একটি ছবি তুলুন।
লগ ইন পেজে ইউজারের বক্সে আপনার মোবাইল নাম্বার এবং রেজিস্ট্রেশন এর সময় সংরক্ষণ করা পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করুন।
এবার আপনার পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য এসএমএসের মাধ্যমে একটি ওটিপি কোড আপনার দেওয়া মোবাইল নাম্বারে পাঠানো হবে। ভেরিফিকেশন বক্সে ওটিপি কোডটি বসান।
আপনি চাইলে এন্ড্রোয়েড এপস অথবা ওয়েব পোর্টালে ঢুকে আপনার মোবাইল নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে লগ ইন করতে পারবেন।
প্রয়োজন অনুযায়ী বাংলাদেশ পুলিশের সেবা নিতে পারবেন। দ্বিতীয় ধাপে অভিযোগের এবং আপনার কি হারিয়েছে অথবা কি খুজে পেয়েছেন তা নির্বাচন করুন।
কোন জেলায় ও কোন থানায় জিডি করতে চান তা নির্বাচন করে ঘটনার সময় ও স্থান লিখে “পরবর্তী ” বাটন চাপুন।
তৃতীয় ধাপে আপনার বর্তমান ঠিকানা ও ঘটনা সম্পর্কে আরোও বিস্তারিত লিখতে পারেন।
অভিযোগ সম্পর্কিত কোন ডকুমেন্ট থাকলে সেগুলো এটাসমেন্ট হিসাবে আপলোড করতে পারেন।
এবার “সাবমিট ” বাটনে ক্লিক করে আপনার অভিযোগ বা জিডি জমা দিন অথবা ‘ইডিট ” বাটনে ক্লিক ফর্ম পুরনে কোন সমস্যা হলে তা সমাধান করুন।
আবেদন সম্পন্ন হলে পরবর্তীতে আপনি আবার লগ করে আপনার অনলাইন জিডির সর্বশেষ অবস্থা জানতে পারবেন।

অনলাইন জিডি এপস ও ওয়েব সাইট ব্যবহারের সুবিধা সমূহ

১। ঘরে বসেই খুব সহজেই আপনার অভিযোগ তাৎক্ষণিক ভাবে পুলিশকে জানাতে পারবেন।
২। নিজেই আপনার অভিযোগের সর্বশেষ অবস্থা জানতে পারবেন।
৩। আপনার অভিযোগের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারের সাথে অনলাইনে যোগাযোগ করতে পারবেন।
৪। অনলাইনে আপনার অভিযোগ বা জিডি কপি ডাউনলোড, প্রিন্ট করতে পারবেন এবং প্রয়োজনে জিডির ডিজিটাল কপি যে কাউকে প্রেরন করতে পারবেন।