বিপ এপস

বিপ এপস আসছে সবাইকে ছাড়িয়ে যেতে

আন্তর্জাতিক তথ্য প্রযুক্তি
ইন্টারন্যাশনাল ম্যাসেজিং ও ভিডিও কলিং এপস Bip এর হঠাত জনপ্রিয়তা পাওয়ার হার জানিয়ে দিচ্ছে বিপ এপস তৈরি হয়েছে সবাইকে ছাড়িয়ে যাওয়ার জন্য।

 

বিপ এপস কিঃ-

২০১৩ সালে তুরস্কের টার্কসেল কোম্পানির দ্বারা ভিডিও কলিং ও ম্যাসেজিং এর জন্য নির্মিত এপসটি আনুষ্টানিক উদ্বোধন হলেও এতোদিন এর ব্যবহারকারী ছিল বেশীর ভাগ ইউরোপীয় অঞ্চলের বাসিন্দা।

 

কিন্তু হোয়াটস এপসের প্রাইভেসী পলিসি সংক্রান্ত ঘোষনা আসার পর বিপ এপস টি বিশ্বব্যাপি ব্যাপক সাড়া ফেলে। বর্তমানে বিশ্বের প্রায় ১৯২ টি দেশে এটি ছড়িয়ে পড়েছে।

 

কিছুদিন আগে হোয়াটস এপস জানিয়েছিল তারা তাদের কিছু ব্যবসায়িক পার্টনারদের সাথে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত কাজে লাগাতে চায়। এরপর থেকে বিশ্বের প্রায় ২০০ কোটি হোয়াটস এপস ব্যবহারকারীর মনে সংশয়ের উদ্বেগ হয়।

 

এরমধ্যেই আলোচনায় আসে তুরস্কের Turkcell কোম্পানীর তৈরি এই ম্যাসেজিং এপসটি। হোয়াটস এপসের ঘোষনাটি আসার পর প্রতিদিন গড়ে ২০ লক্ষ বার ডাউনলোড হয়েছে এটি।

 

প্রথম দিকে জার্মানীসহ আরো কিছু ইউরোপের দেশে বিপ এপসের প্রচলন শুরু হলেও বর্তমানে তা গোটা বিশ্ব ছড়িয়ে পড়ছে।
টার্কসেল কোম্পানী আশা করছে আগামী কয়েকদিনে এর ব্যবহারকারী ১০ কোটি ছাড়িয়ে যাবে। পরিসংখ্যান বলছে, সর্বাধিক প্রচলিত ভিডিও কলিও ও ম্যাসেজিং এপস হোয়াটস এপসের ব্যবহার কারীর সংখ্যা প্রায় ২০০ কোটি।

 

সেই বিবেচনায় যদিও এপসটি হোয়াটস এপসের আশে পাশেও নেই। কিন্তু প্রাইভেসীর প্রশ্নে হোয়াটস এপসের সাম্প্রতিক ঘোষনা আর কিছু বাড়তি ফিচার বিপ এপস ব্যবহারকারীদের আকৃষ্ট করতে পারবে।

 

অবশ্য গত কিছু দিনে বিপ এপসের নতুন ব্যবহারকারীর পরিসংখ্যান অনুযায়ী এটি ব্যবহারকারীর মন জয় করতে সক্ষম হয়েছে।

 

বিপ এপস কেন এতো জনপ্রিয়তা পাচ্ছেঃ-

প্রাইভেসীর প্রশ্নে সাধারন মানুষ আপোষ করতে নারাজ। আর তাই হোয়াটস এপসের ঘোষনাটি সাধারন ব্যবহারকারীদের উপর খারাপ প্রভাব ফেলে। যার ফলে মানুষ হয়তো কোন বিকল্প অনুসন্ধান করছিল। আর এরই মধ্যে বিপ এপসের গুন গুলো মানুষের মাঝে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। ইমো,হোয়াটস এপস, ফেসবুক লাইট এর মতো জনপ্রিয় ম্যাসেজিং এপস গুলোকে টেক্কা দেওয়ার মতো রসদ আছে বিপ এপসের ভান্ডারে।

 

বিপ এপস এর বাড়তি সুবিধাঃ-

  • সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো এর প্রাইভেসী। এটি সম্পুর্ন এন্ড টু এন্ড এনক্রিপটেড।
  • whats apps সব সুবিধার পাশাপাশি বড় বড় ফাইল অনায়েসে পাঠানো যায়
  • অশ্লীল এড তো দুরের কথা, কোন এডই নেই।
  • এখন পর্যন্ত এর রেটিং 4.4 পয়েন্ট।
  • বড় কোনো অডিও মাঝখান থেকেও শোনা যায়। টানা যায়৷ এই সুবিধা ইমু বা ওয়াটসপে নেই।
  • কীবোর্ড থিম এর সুবিধাও আছে।
  • পার্সোনাল লক সিস্টেম।
  • ১০৬ টি ভাষার অটো ট্রান্সলেট সুবিধা। মানে আপনি আরবীতে লিখলেও অন্যজনের কাছে তা বাংলা হয়ে পৌছুবে।
  • এক সাথে HD কোয়ালিটিতে ১০ জনের সাথে ভিডিও কলের সুবিধা।
  • আলাপ এপ যাতে না আসে সেজন্য দৌড়ঝাপ শুরু

বিপ এপস এ একাউন্ট খোলার নিয়মঃ-

বিপ এপসটি ইন্সটল করার জন্য সরাসরি প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করুন।

 

Bip apps এক্টিভেট করতে মোবাইল নম্বরে 0 বাদ দিবেন। +880 অটোমেটিক দেওয়া আছে। 0 দিলে +8800 হয়ে যাচ্ছে এবং তার কারণে ফিরতি টেক্সট দেওয়া যাচ্ছে না।
ইতোমধ্যে যারা 01 দিয়ে নাম্বার শুরু করে তারা আনইন্সটল করে আবার ইন্সটল করুন এবং 1 দিয়ে (0 বাদ দিয়ে) মোবাইল ডিজিট শুরু করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *