ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম (বৈধ উপায়ে)

ইউটিউব ওয়েব
বৈধ উপায়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম আছে মাত্র একটি,ওয়েবে ভিডিও ডাউনলোড করার অনেক সাইট এবং এপ্লিকেশন আছে,কিন্তু এগুলো বৈধ উপায় নয়।ইউটিউব কোনভাবেই ভিডিও ডাউনলোড পছন্দ করে না।আর সেজন্যেই ঢালাওভাবে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সুযোগ রাখেনি।

 

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সফটওয়্যার

যদিও ওয়েবে ভিডিও download করার অনেক সাইট এবং এপ্লিকেশন আছে,কিন্তু এগুলোর কোনটাই ইউটিউব সমর্থন করে না।সেই হিসাবে থার্ড পার্টির ওয়েবসাইট বা এপ্লিকেশান ব্যবহার করে ভিডিও download করা কোন মতেই বৈধ নয়।
ইউটিউব চায় না যে তাদের ভিডিওগুলো মানুষ ডাউনলোড করুন।এজন্যে যত ধরনের ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সফটওয়্যার আছে সেগুলোর সাথে ইউটিউবের কোন সম্পর্ক নেই।
এগুলো তৃতীয় পক্ষের দ্বারা পরিচালিত।যদিও উল্লেখযোগ্য সংখ্যাক মানুষ ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করে।তবে সেটা কোন ভাবেই ইউটিউব পছন্দ করে না।
ইউটিউব শুধু বিনোদনের মাধ্যম নয়, একটু চেষ্টা করলে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করা সম্ভব। দেখে নিন কিভাবে, 
আরও পড়ুন,
আর একারনেই ইউটিউবের ওয়েব সাইটে video download করার কোন অনশন রাখা হয়নি।যাতে কেউ ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে না পারে।কিন্তু তাই বলে কিন্তু মানুষ বসে নেই।
পছন্দের ভিডিওটি নিজের মিডিয়া গ্যালারীতে ডাউনলোড করে নিয়ে আসার অনেক উপায় বের করেছে। ইন্টারনেটে খুজলে শত শত ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সফটওয়্যার ও এপ্লিকেশান পাওয়া যাবে।
যেগুলো দিয়ে খুব সহজেই নিজের ইচ্ছামতো youtube থেকে দেদারছে ভিডিও ডাউনলোড করে চলেছে।

downloader softwer

তবে আজ আমরা অবৈধ উপায় গুলা এড়িয়ে যাবো আর বৈধ উপায়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম জেনে নিবো।
সেজন্যে আজকের লেখায় অবৈধ ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সফটওয়্যার ও ওয়েব এপ্লিকেশান গুলো সম্পর্কে কোন আলোচনা হবে না।
সাধ্যের মধ্যে ল্যাপটপ কিনতে মাধ্যম বাজেটের কিছু ল্যাপটপের ফুল স্পেসিফিকেশন,
এখনো পর্যন্ত বিশ্বের সর্ব বৃহৎ ভিডিও স্ট্রিমিং এবং আপলোডিং সাইট হচ্ছে YouTube। ইউটিউব সম্পর্কে নতুন করে কিছুই বলার অপেক্ষা রাখে না।
ইউটিউব চ্যানেলের জন্য এডসেন্স নামক সোনার হরিন পেতে আপনাকে যা যা করতে হবে,
আরও পড়ুন, 
এই মুহুর্তে বিশ্বে মাসিক হিসাবে ইউটিউব ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ২.৩ বিলিয়ন মানুষ। ১২২ মিলিয়ন ব্যবহারকারী ঘন্টার হিসাবে প্রতিদিন ১ বিলিয়ন ঘন্টার ভিডিও ইউটিউব থেকে দেখে থাকে। আর প্রতি মিনিটে আপলোড হচ্ছে প্রায় ৩০০ ঘন্টার ভিডিও।
২৩ এপ্রিল ২০০৫ সালে ইউটিউবে প্রথম ভিডিওটি আপলোড হবার পর থেকে আজ ২০২২ অবধি ইউটিউবে আপলোড হওয়া মোট ভিডিওর সঠিক সংখ্যা বলা মুশকিল।
কিন্তু বাস্তবতা হলো এটাই যে,মিলিয়ন মিলিয়ন video এর মধ্যে থেকে ইউটিউব ব্যবহারকারীদের জন্য একটি ভিডিও download করার সুযোগ দেয় না।
দেখে নিন আকাশ ডিটিএইচের বিভিন্ন প্যাকেজের চ্যানেল লিষ্টসমূহ :-

 

পিসিতে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

শুধু মাত্র এন্ড্রোয়েড আর আইফোন ব্যবহারহারকারীরা ইউটিউবের এন্ড্রোয়েড/আইএস এপ্লিকেশন ইন্সটল করে ইউটিউবের ভিডিওগুলো ডাউনলোড করে রেখে পরে অফলাইনে দেখার সুযোগ পায়।
তবে কোন ভাবেই ইউটিউবের ভিডিও নিজের মিডিয়া গ্যালারীতে নেওয়ার অধিকার কোন ব্যবহারকারীর নেই।
সত্যি বলতে পিসিতে ইউটীঊব ভিত্তি ডাউনলোড করার কোন বৈধ উপায় নেই।তবে অবলাইনে হাজারো সাইট আছে যেগুলো ব্যবহার করে পিসিতে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করা যায়।
আরও পড়ুন,
আমরা বুঝতে পেরেছি যে youtube থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার অর্থ হল আপনি সর্বদা YouTube এর শর্তাবলী লঙ্ঘন করছেন৷ আমরা আরও জানি যে আপনি যদি কপিরাইটযুক্ত কনটেন্ট ডাউনলোড করেন তবে আপনি আইন ভঙ্গ করছেন৷
কিন্তু এমন কোন সময় আছে যখন YouTube ভিডিও ডাউনলোড করা বৈধ?
হ্যাঁ! যে ভিডিওগুলির জন্য কপিরাইট আইন প্রযোজ্য নয়, বা যে ভিডিওগুলির জন্য কপিরাইট আপনাকে ভিডিওটি পুন ব্যবহারের অধিকার দেয় সেগুলি ডাউনলোড করতে আপনি থার্ড পার্টির YouTube ডাউনলোডার ব্যবহার করতে পারেন৷
YouTube থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা YouTube-এর পরিষেবার শর্তাবলীর লঙ্ঘন এবং কোম্পানি আপনার বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে৷
তবে,এখনো পর্যন্ত ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য ব্যবহারকারীদের শাস্তি দেওয়ার কোনো নজির পাওয়া যায়নি।
অনুমতি ছাড়া কপিরাইট করা ভিডিও ডাউনলোড করা একটি অপরাধমূলক কাজ।
সঠিক লাইসেন্স সহ কিছু ভিডিও অপরাধমূলক দৃষ্টিকোণ থেকে ডাউনলোড করা বৈধ এবং এই সব সম্ভবত অন্যান্য ভিডিও সাইটে প্রযোজ্য, তাই সতর্কতা অবলম্বন করুন।
আরও পড়ুন,
তাহলে কি কোনভাবেই youtube থেকে ভিডিও download করা যাবে না?হ্যাঁ যাবে।
ইউটিউব একটা সুযোগ রেখেছে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার।আর সেটা হলো এন্ড্রোয়েড ও আইওএস এপ্লিকেশানটি ব্যবহার করে  ভিডিও ডাউনলোড করা যায়।আসুন পুরা প্রক্রিয়াটা একবার দেখে নিই।

 

মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

বিশ্বে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ৮০ ভাগেরও বেশী মোবাইল ইউজার।সহজে হাতে বহনযোগ্য হওয়ায় যেখানে ইচ্ছা সেখানে বসে মোবাইল থেকে ইন্টারনেট ব্যবহারের প্রবনতা অনেক বেড়ে গেছে।
তাই আজ আমরা মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার বৈধ উপায় গুলো স্ক্রীনশর্ট সহ ধাপে ধাপে দেখানে হবে।

 

মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড অ্যাপ (youtube এন্ড্রোয়েড/আইওএস এপস)

বৈধ উপায়ে মোবাইল বা কোন ডিভাইসের ব্রাউজার ব্যবহার করে  ভিডিও ডাউনলোড করার উপায় নেই।
সর্বশেষ সংস্করনের এন্ড্রোয়েড এবং আইওএস ব্যবহারকারীরা তাদের ফোনে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড অ্যাপ অর্থাৎ youtube এপ্লিকেশানটি ইন্সটল করে মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার সুবিধা নিতে পারে।

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড অ্যাপ থেকে নেওয়া ভিডিও গুলোকে ডাউনলোড বলা হলেও এটি আসলে শুধুমাত্র অফলাইনে দেখার জন্য।
ধরুন আপনার একটি পছন্দের ভিডিও ইউটিউব এপসের সাহায্যে মোবাইলে download করে রাখলেন।
পরবর্তীতে কখনো যদি আপনার ডাটা কানেকশান নাও থাকে তবে ইউটিউব এপস থেকে আগের ডাউনলোড করে রেখে দেওয়া video গুলো দেখা যাবে।
তবে download করা video গুলো কোন ভাবেই ইউজার মিডিয়া গ্যালারীতে নিতে পারবে না।

অফলাইন ভিডিও

মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম

ইন্টারনেট সংযোগ সহ একটি এন্ড্রোয়েড ফোন লাগবে। এন্ড্রোয়েড থেকে youtube এপ্লিকেশানটি আপডেট করে নিতে হবে। তাহলেই খুব সহজে মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করা যাবে।
এবার আপনার ফোন থেকে youtube এপ্লিকেশানটি ওপেন করুন,সাজেস্টেড ভিডিও থেকে অথবা আপনার সার্চ করা video গুলোর গ্যালারী দেখতে পাবেন।যেরকম আপনি youtube web home page এ দেখতে পান।
পার্থক্য শুধু এখানে ভিডিওর পাশে download বাটনটি দেখতে পারবেন। শুধু দেখতে পারাই নয় ভিডিওটি ডাউনলোড করার প্রয়োজন হলে আপনি সঙ্গে সঙ্গে download বাটনে একটি মাত্র ক্লিক করে মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করে রেখে দিতে পারবেন।
যাতে যখন আপনার ফোনে ডাটা কানেকশন থাকবে না তখন এইসব ভিডিও গুলো দেখতে পান।
অর্থাৎ এককার ডাউনলোড করা ভিডিও গুলো অফলাইন মোডে চলে আসলে সেই ভিডিও কোন প্রকার ডাটা কানেকশন ছাড়াই নিশ্চিন্তে দেখতে পারবেন।
অনেক কথা হলো এবার আসুন সরাসরি দেখে নিই মোবাইলে YouTube video ডাউনলোড করার সহজ নিয়মটি।
প্রথমে আপনার ফোনের ইউতিউব এপস থেকে আপনি যে ভিডিওটি ডাউনলোড করতে চান সেটিতে ক্লিক করুন।অটো প্লের বদৌলতে ভিডিওটি ততক্ষনে চলতে শুরু করবে।
আর তার ঠিক ডান দিকে আপনি ডাউনলোড আইকনটি দেখতে পাবেন।চিত্রে লাল গোল চিহ্নিত।

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড বাটন

 

এবার শুধু download আইকনে ক্লিক করুন।দেখুন মুহুর্তের মধ্যে ভিডিওটি ডাউনলোড শুরু হয়ে গেছে।
নিচের দিকে Downloading… লেখাটি দেখলে বুঝবেন আপনার নির্দেশিত ডাউনলোড টি শুরু হয়েছে।
আপনার ইন্টারনেটের সংযোগের স্প্রিড অনুযায়ী আপনাকে অপেক্ষা ওরতে হবে,যতক্ষন download প্রক্রিয়া সম্পন্ন না হচ্ছে।

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডিং

সফলভাবে ডাউনলোড সম্পন্ন হবার একটা ম্যাসেজ দেখতে পাবেন।এবার আপনি আপনার ডিভাইসের ডাটা কানেকশন বন্ধ করুন।
youtube নামক এপ্লিকেশানটি ওপেন করুন। দেখতে পাবেন ডাউনলোড হওয়া ভিডিও গুলো Your Downloads  নামক ফোল্ডারে সারিবদ্ধভাবে সাজানো আছে।

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

সফলভাবে ডাউনলোড সম্পন্ন হওয়া ভিডিও গুলো আপনার ফোনের youtube এন্ড্রোয়েড এপসে পাবেন।
যেকোন অবস্থায় এমনকি ডাটা অফ থাকা অবস্থায় আপনি আপনার ফোনের youtube এপ্লিকেশানটি ওপেন করে বিনা ডাটায় ডাউনলোড করা ভিডিও গুলো দেখতে পারেন।তখন কোন এমবির প্রয়োজন হবে না।
তবে কোন ভাবেই ডাউনলোড করা ভিডিও গুলো আপনার মিডিয়া গ্যালারীতে নিতে পারবেন না।
এসডি কার্ডে কপি হবে না।কারন এগুলো .yt ফরম্যাটে এনক্রিপ্ট করা থাকে যাতে অই ডিভাইসের অন্য কোন এপ্লিকেশান দিয়ে ভিডিওগুলো এক্সেস করা না যায়।

 

Google Go দিয়ে মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

ইউটিউব এন্ড্রোয়েড বা আইওএস এপ্লিকেশান দিয়ে ভিডিও ডাউনলোড পদ্ধতি আর গুগল গো দিয়ে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড পদ্ধতি প্রায় একই।

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

প্রথমে Google Go ওপেন করতে হবে।উপরের ছবিতে দেখানো ইউটিউব আইকনে ক্লিক করতে হবে।
এবার ইউটিউব হোমপেজ থেকে একটি ভিডিও প্লে করতে হবে।ভিডিও চলতে শুরু করবে। নিচের ছবির মতো,

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

ভিডিও চলা অবস্থায় ছবিতে লাল বৃত্তের মধ্যে থাকা download বাটনে ক্লিক করলে ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে। ডাউনলোড সম্পন্ন হওয়ার পর
ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড
আপনার ডাউনলোড করা ভিডিও টি অফলাইনে থাকাবস্থায় Google Go এপসে সারিবদ্ধভাবে সাজানো অবস্থায় দেখতে পাবেন।
তবে Google Go তে একটি বিশেষ সুবিধা আছে আর সেটি হলো এখানে ডাউনলোড করা ভিডিও গুলো ফোন মেমোরির বদলে এসডি কার্ডে সংরক্ষন করা যায়।যদিও এসডি কার্ডটি খুলে অন্য ডিভাইসে সেট করলে ইউটিউবের ডাউনলোড করা ভিডিও গুলো দেখা যাবে না।

কিভাবে ইউটিউব ভিডিও এসডি কার্ডে ডাউনলোড করা যায়

ফোন মেমোরি বাচানোর জন্য আপনি যদি উদ্বিগ্ন হয়ে থাকেন তাহলে আপনার জন্য সমাধান হলো,Google Go দিয়ে ভিডিও ডাউনলোড করা।
তাহলে আপনি ডাউনলোড করা ভিডিও গুলো সরাসরি আপনার ফোন মেমোরিতে সংরক্ষন করতে পারবেন।ছোট একটি সেটিংসে পরিবর্তন করে আপনি এই সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।
তো আসুন দেখে নিই কিভাবে ইউটিউবের ভিডিও এসডি কার্ডে ডাউনলোড করবেন।

Google Go থেকে এসডি কার্ডে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম

ইউটিউব থেকে সরাসরি এসডি কার্ডে ভিডিও ডাউনলোড করতে চাইলে আপনাকে নিম্নোক্ত ধাপ গুলো অনুসরন করুন।
যেহেতু আপনি ডাউনলোড করা ভিডিও গুলো এসডি কার্ডে ভিডিও সেভ করতে চান। তাহলে প্রথমে আপনার ফোনে একটি এসডি কার্ড ভরুন।
ভিডিও সেভ করার জন্য এসডি কার্ডটি চিহ্নিত না করলে ভিডিওগুলি ফোনের মেমরিতে সেভ হতে থাকবে।
Google Go অ্যাপ খুলুন,
স্ক্রিনের একদম উপরে আপনার প্রোফাইল ছবিতে ট্যাপ করুন ।
প্রোফাইল থেকে সেটিংস বাটনে ট্যাপ করুন।
“ভিডিও স্টোরেজ” অপশনে এসডি কার্ড সিলেক্ট করুন।
এখানে আপনার কাজ শেষ।
এবার  এসডি কার্ডে ডাউনলোড করতে চাইলে
Google Go অ্যাপ খুলুন,
যে ভিডিওটি এসডি কার্ডে ডাউনলোড করতে চান সেটি বেছে নিন।
ভিডিওটিতে একবার প্লে বাটনে ক্লিক করে চালু করুন।
Download বাটনে ক্লিক করুন।
ভিডিও কতটা ডাউনলোড হয়েছে তা হোম স্ক্রিনে অথবা ডাউনলোড ট্যাবে চেক করতে পারবেন।এবার ডাউনলোড সম্পন্ন হওয়া ভিডিও গুলো ফোনের এসডি কার্ডে সেভ হবে।

 

পরিশেষে

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য এটাই একমাত্র বৈধ পন্থা।এটা ছাড়া যত ওয়েবসাইট,এপ্লিকেশান আছে video ডাউনলোডার হিসাবে সবগুলোই থার্ড পার্টির দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এবং এগুলো কোনভাবেই youtube সমর্থন করে না বা পছন্দও করে না।তাই আজকের লেখায় আপনি শুধু বৈধ উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে পারলেন।বাকীটুকু জানার জন্য গুগল তো আছেই।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.