ট্রেনের টিকিট ক্রয়

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় (নতুন নিয়মে)

তথ্য প্রযুক্তি বাংলাদেশ
করোনা পরিস্থিতির কারনে বন্ধ হয়ে যাওয়া রেলসেবা সীমিত আকারে পুনরায় চালু হলেও রেলের নিয়মকানুনে অনেক পরিবর্তন হয়েছে।পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা বাধ্যতামুলক করা হয়েছে।যাতে লোক সমাগম এড়িয়ে মানুষ সহজেই নিজের সুবিধামতো টিকিট ক্রয় করতে পারে।

 

রেলওয়ের ওয়েবসাইটে একটি একাউন্ট খুলে সেখানে নিজের জাতীয় পরিচয়প্ত্র ভেরিফিকেশন করে যেকেউ অনলাইন পেমেন্টের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করতে পারবে।

ট্রেনের টিকিট ক্রয়

 

আজকের পোষ্টে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করার নিয়ম (নতুন নিয়মে) ধাপে ধাপে আলোচনা করা হবে।

 

ট্রেনের অগ্রীম টিকিট কাটার সময়ঃ

প্রথমেই বলে রাখি অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করার ক্ষেত্রে সাধারন যাত্রীদের অভিজ্ঞতা মোটেও সুখকর নয়।
বেশীরভাগ ক্ষেত্রে শোনা যায় অনলাইনে টিকিট নাকি পাওয়া যায় না অথবা সব সিট বুক দেখা যায়।এক্ষেত্রে সহজ সমাধান হলো রেলসেবার এপ্লিকেশনে টিকিট বুকিং এবং ট্রেনের অগ্রীম টিকিট কাটার সময় শুরু হয় সকাল ৮ টায়।অই সময়ের আগেই প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট এবং বিকাশ একাউন্টে পর্যাপ্ত ব্যালান্স রেখে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করার চেষ্টা করা হলে আশা করি টিকিট পাওয়া সহজ হবে।
অনলাইনে ট্রেনের অগ্রীম টিকিট কাটার সময় ঠিক কখন শুরু হয় এটা বুঝতে পারলে আপনি অবশ্যই অনলাইন থেকে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন।
টিকিট ছাড়ার নিদির্ষ্ট দিন বের করে ঠিক সকাল ৮ টায় আপনি অনলাইনে ট্রেনের টিকিট বুকিং এবং ক্রয় করার চেষ্টা করলে আশা করি আপনি সফল হবেন।

 

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয়

করোনার বিস্তার রোধে জনস্বার্থে কিছু নতুন নিয়ম কানুন যোগ করা হয়।নতুন নিয়মে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করার একমাত্র মাধ্যম রাখা হয়েছে অনলাইন থেকে।এই নিয়মে যাত্রী নিজেই পছন্দ মতো সিট বুকিং ও ক্রয় করতে পারবে।একজনের টিকিটে যাতে অন্য কেউ ভ্রমন করতে না পারে সেজন্য জাতীয় পরিচয় পত্র ভেরিফিকেশনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

 

যে কারো জন্য অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করতে পারাটা অনেক বড় সুবিধা।এতে সাধারন যাত্রী নানান ভোগান্তির হাত থেকে রেহাই পেল।বিশেষ করে টিকিট কাউন্টারের সিরিয়ালে দাঁড়িয়ে চাতক পাখির ন্যায় টিকিটের আশায় দাঁড়িয়ে থাকার হাত থেকে সাধারন যাত্রীদের মুক্তি মিলেছে।
প্রযুক্তির কল্যানে আজ আমরা ঘরে বসেই ট্রেনের টিকিট কাটার সুযোগ পাচ্ছি।এর চেয়ে সুবিধা আর কি হতে পারে?
বিশেষ করে যারা নিয়মিত রেল ভ্রমন করে থাকেন টিকিট কাটা নিয়ে তারা সবসময় একটা দুশ্চিন্তায় থাকতেন।তাদের জন্য তো বটেই পাশাপাশি এটা সকলের জন্য সুবিধাজনক।

 

তবে হ্যাঁ এই সুবিধাটুকু ভোগ করতে হলে কিছু জিনিষ থাকতে হবে যেমন ইন্টারনেট কানেকশন অবশ্যই থাকতে হবে,একটা স্মার্টফোন অথবা যে কোন ওয়েব ব্রাউজার এবং নিজের জাতীয় পরিপত্রের নাম্বার।আর টিকিটের মুল্য পরিশোধের জন্য বিকাশ একাউন্ট অথবা প্রচলিত কার্ড।তাইলেই আপনি অনলাইন থেকে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন।
তো আসুন আর কথা না বাড়িয়ে দেখে নেওয়া যাক কিভাবে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যায়।খুব সহজ নয় কয়েকটি ধাপে প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে।

 

নতুন নিয়মে ট্রেনের টিকিট ক্রয়

আগে যেখানে ট্রেন শিডিউলের ১০ দিন আগে থেকে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যেত নতুন নিয়মে এখন টিকিট বুক এবং ক্রয় করা যাবে ট্রেন ছাড়ার ঠিক ৫ দিন আগে থেকে।
৮ জুন ২০২১ ইং তারিখ হতে বর্তমানে চলাচলকারী ট্রেনের ৫০% টিকিট একইসাথে কাউন্টার ও অনলাইনে বিক্রয় করা হবে।
সেক্ষেত্রে ২৫% টিকিট মোবাইল এ্যাপস্ এবং ২৫% টিকিট কাউন্টারে বিক্রয় করা হবে।
কাউন্টার হতে সকাল ৮ ঘটিকা হতে টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন।এছাড়া যাত্রার ৪৮ ঘন্টা পূর্বে অবিক্রিত টিকিট একইসাথে অনলাইন/কাউন্টার হতে ক্রয় করতে পারবেন।ক্রয়কৃত আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট ফেরত (রিফান্ড) প্রদান করতে পারবেন।
আসনবিহীন টিকিট বিক্রয় করা হবে না। তাই অযথা কাউন্টারে ভীড় করা থেকে বিরত থাকুন। টিকিটবিহীন কোন যাত্রী স্টেশনে প্রবেশ বা ট্রেনে ভ্রমন করতে পারবেন না।
ট্রেনে প্রবেশ ও বাহিরের জন্য ভিন্ন ভিন্ন দরজা ব্যবহার করতে হবে।বিশেষ প্রয়োজন ব্যতীত রেলভ্রমন করবেন না।
অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। মাস্ক ব্যতীত কোন যাত্রীতে স্টেশনে প্রবেশ বা ট্রেনে ভ্রমণ করতে দেয়া হবে না।
এন্ড্রোয়েড ফোন এবং রেলওয়ের ওয়েবসাইট থেকে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যাবে।পরযায়ক্রমে ২ টি উপায়ে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করার নিয়ম নিয়ে আলোচনা করা হবে।
প্রথমে দেখে নেওয়া যাক এন্ড্রোয়েড ফোন দিয়ে কিভাবে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যায় তার বিস্তারিত ধাপগুলো।
ঘরে বসে ট্রেনের লোকেশান জেনে নিতে আরো পড়ুনঃ-
ট্রেনের অবস্থান নির্ণয়: Train location bd

 

এন্ড্রোয়েড ফোন দিয়ে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয়

স্মার্ট ফোন দিয়ে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যাবে রেলসেবা নামক এপসটি ব্যবহার করে।সুতরাং সর্ব প্রথম আপনার স্মার্ট ফোনে রেলসেবা এপসটি ইনস্টল করতে হবে।
সরাসরি লিংক থেকে রেলসেবা নামক এপসটি ইনস্টল করুন।
সফলভাবে ইনস্টল হয়ে গেলে এপসটি ওপেন করুন।একেবারে নীচে ৩ টি অপশান পাওয়া যাবে। (১) Login (২) Sign-up (৩) Forgot password
আপনি যদি ইতিপূর্বে রেজিষ্টশান না করে থাকেন তবে Sign-up/Registration অপশানে যান।

 

এবার সঠিক তথ্য দিয়ে রেজিষ্টেশন ফরম পুরন করুন।মোবাইল নাম্বার বা ইমেইল দুটোই ব্যবহার করে রেজিষ্টেশন কমপ্লিট করা যাবে।
তবে,মোবাইল নাম্বার বা ইমেইল যেটাই ব্যবহার করবেন সেটা যেন সক্রিয় হয়।কারন ৬ সংখ্যার একটি কোডের মাধ্যমে ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।
রেজিষ্টেশন সফল হলে প্রোফাইল এ লগ ইন করে সেটিংসে আপনার ইনফরমেশন আপডেট করতে হবে।
বিশেষ করে যেহেতু এন আই ডির বাধ্যবাধকতা আছে সেহেতু এন আই ডি সহ আপনার অন্যন্য তথ্য আপডেট করতে হবে।
আপডেট হয়ে গেলে আপনি রেলসেবা এপসটির সকল সুবিধা উপভোগ করে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন।

 

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় ও বুকিং প্রক্রিয়াঃ-

ধাপে ধাপে আপনি খুব সহজেই যাত্রার স্থান,তারিখ,সময় নির্ধারণ করে টিকিট বুক এবং পেমেন্ট প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারবেন।
এখানে প্রথমে আপনাকে Route সিলেক্ট করতে হবে অর্থাৎ আপনি কোথা থেকে কোথায় যেতে চান।তারপর Date এর ঘরে যাত্রার তারিখ লিখবেন।Class এর ঘরে আপনি কোন শ্রেনীতে যাত্রা করতে চান সেটি সিলেক্ট করতে হবে।
এবার Passenger(s) এর ঘরে Adult এ প্রাপ্ত বয়স্ক যাত্রীর সংখ্যা এবং Child এ বাচ্চার সংখ্যা সিলেক্ট করে Find বাটনে চাপতে হবে।
সিট বরাদ্দের ক্ষেত্রে দুটো অপশান থাকবে।সবুজ বাটনে Any seat এবং লাল বাটনে Select seat লেখা।
Any seat সিলেক্ট করলে ফাকা সিট থেকে একটি সিট আপনার জন্য বরাদ্দ হয়ে যাবে। Select seat ব্যবহার করে ফাকা সিট গুলোর মধ্য আপনি একটি সিট বাছাই করে নিতে পারবেন।

 

বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট ক্রয়ঃ

সিট বাছাই করে Purchese বাটনে ক্লিক করলেই আপনাকে পেমেন্ট পেজ এ নিয়ে যাবে।ভিসা কার্ড, রকেট বা বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যাবে।
দেখানো ধাপগুলো অনুসরন করে সম্পন্ন করতে হবে আপনার ট্রেনের টিকিট ক্রয় করার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারবেন।
পেমেন্ট কনফার্ম হলে এপসের হিস্টরি বাটনে/মোবাইল এসএমএস অথবা ইমেইলে আপনার ই-টিকিট টি পেয়ে যাবেন।

 

ওয়েব ব্রাউজার দিয়ে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয়

যেকোন ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার জন্য সর্ব প্রথম আপনাকে রেলওয়ের ওয়েবসাইট এর এই ঠিকানায় ঢুকতে হবে।বাকী প্রক্রিয়া গুলো প্রায় একই,যেভাবে এন্ড্রোয়েড ফোনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যায়।

ট্রেনের টিকিট ক্রয়

যদি আগে থেকে আপনি এই সাইটের ইউজার হয়ে থাকেন তাহলে ইউজার আইডি,পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করতে হবে।
আর একেবারে নতুন ইউজার হলে প্রথমে আপনাকে রেজিষ্টেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।
নতুন করে রেজিষ্টেশন করতে চাইলে সাইটের উপরে মেনু থেকে Register এ ক্লিক করতে হবে।ইউজার রেজিষ্টেশন ফরম আসবে।সঠিক তথ্য দিয়ে ফরমটি পুরন করে নীচে SignUp বাটনে ক্লিক করতে হবে।আপনার দেওয়া মোবাইল নাম্বারে ৬ সংখ্যার একটি ভেরিফিকেশান কোড যাবে।
Verify Mobile পেজে Code এর ঘরে ৬ সংখ্যার সেই কোডটি বসিয়ে Verify বাটনে ক্লিক করতে হবে।
প্রক্রিয়াটি সঠিকভাবে সম্পন্ন হলে আপনাকে সরাসরি লগেড ইন পেজে নিয়ে যাবে।যেখানে Dashboard থেকে আপনার প্রোফাইলে আপডেটের কাজ(জাতীয় পরিচয় পত্র ভেরিফিকেশন) সম্পন্ন করতে হবে।

ট্রেনের টিকিট ক্রয়

আপডেট সফল হলে আপনি এবার টিকিট কেনার জন্য রেডি।প্রথমে আপনাকে Route সিলেক্ট করতে হবে অর্থাৎ আপনি কোথা থেকে কোথায় যেতে চান।তারপর Date এর ঘরে যাত্রার তারিখ লিখবেন।
Class এর ঘরে আপনি কোন শ্রেনীতে যাত্রা করতয চান সেটি সিলেক্ট করতে হবে।এবার Passenger(s) এর ঘরে Adult এ প্রাপ্ত বয়স্ক যাত্রীর সংখ্যা এবং Child এ বাচ্চার সংখ্যা সিলেক্ট করে Find বাটনে চাপতে হবে।
সিট বরাদ্দের ক্ষেত্রে দুটো অপশান থাকবে।সবুজ বাটনে Any seat এবং লাল বাটনে Select seat লেখা।Any seat সিলেক্ট করলে ফাকা সিট থেকে একটি সিট আপনার জন্য বরাদ্দ হয়ে যাবে।Select seat ব্যবহার করে ফাকা সিট গুলোর মধ্য আপনি একটি সিট বাছাই করে নিতে পারবেন।

ট্রেনের টিকিট সংগ্রহঃ

দেখানো ধাপগুলো শেষ পর্যন্ত অনুসরন করতে পারলে আপনি আপনার প্রথম অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারবেন।প্রদত্ত নির্দেশনা মোতাবেক পেমেন্ট করার পর আপনার কাজ প্রায় শেষ।  আপনার ফোন এসএমএস বা ইমেলে আসা টিকিটের পিডিএফ ফাইলটি হাতের কাছের কোন কম্পিউটারের দোকান থেকে ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করা সম্পন্ন করুন অথবা যাত্রার ৬ ঘন্টা আগে ষ্টেশন কাউন্টার থেকে প্রিন্ট করে নিতে পারবেন।

শেষকথাঃ-

যদিও অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করার প্রক্রিয়াটা একটু জটিল তথাপি দেখানো ধাপ গুলো অনুসরন করে অনলাইন থেকে টিকিট কাটা সম্ভব।উপরোন্ত একটু বুদ্ধি করে অনলাইন থেকে টিকিট কাটতে পারলে আপনি অনেক গুলো ভোগান্তির হাত থেকে বেচে গেলেন।
আপনার যাত্রা শুভ হোক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *