জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো

জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো

তথ্য প্রযুক্তি

একটা স্মার্ট ফোন কেনার পর সেটিতে ইন্টারনেট সংযোগ স্থাপন করে কোন এপ্লিকেশন ইনস্টল করতে চাইলে প্রথমে যেটি লাগে সেটি হলো জিমেইল আইডি।প্রশ্ন হলো জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো? আসুন দেখে নেওয়া যাক।

 

ইমেইল হলো ইলেক্টনিক মেইল তথা ডিজিটাল বার্তা।যা কম্পিউটারের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে প্রেরন করা হয়ে থাকে। প্রযুক্তির উৎকর্ষতার স্বর্নসময়ে নিজের জন্য বা ব্যবসার জন্য একটি ইমেইল একাউন্টের গুরত্ব অপরিসীম। জিমেইল আইডি ওপেন করুন নিমিষেই।যদিও প্রক্রিয়া টি অনেক সহজ।কয়েকটি ধাপে প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হয়ে থাকে।

জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো

 

কিছুদিন পূর্বেও দূরে অবস্থান করা কোন আপনজনের সাথে যোগাযোগের মাধ্যম ছিল চিঠি।কয়েক মাইলের দুরত্বে পাঠাতে লেগে যেত দু চার দিন বা সপ্তাহ।ইমেইলের আবিস্কার রাতারাতি মানুষের যোগাযোগের সীমাবদ্ধতাকে দূর করে দিয়েছে।ইমেইল ব্যবহার করে মানুষ লেটার,ডকুমেন্ট,ছবি,ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে পাঠাতে পারছে যেকোন দুরত্বে।

 

ইমেইল প্রচলনের ফলে ব্যবসা বানিজ্য এবং অফিসিয়াল কাজে অভূতপূর্ব গতি এসেছে।ইমেইলের send বাটন বদলে দিয়েছে মানুষের জীবন ,অভ্যাস।১৯৭২ সালে তদানিন্তন arpanet এ সর্বপ্রথম ইমেইলটি প্রেরন করা হয়।আমেরিকান প্রোগ্রামার রোমান্ড স্যামুয়েল ট্মলিসন ইমেইল এর সুচনা করেন।

 

প্রথমদিকে ইয়াহু ,হট্মেইল অনেক বেশী জনপ্রিয় ছিল।পরবরতীতে গুগলের জিমেইল সার্ভিস ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে।ইমেইলের গুরত্ব এবং ব্যবহার নিয়ে কথা বলে পোষ্টেড় কলেবর বাড়াতে চাই না।

 

ইমেইল আইডি খোলা কেন প্রয়োজনঃ-

Gmail এর একটি ইমেইল একাউন্ট এর প্রয়োজনীয়তা এবং জিমেইল আইডি খোলার প্রক্রিয়াটা ধাপে ধাপে আলোচনা করবো।আজ যদি আপনি একটি স্মার্টফোন কিনে থাকেন তবে সেটি চালাতে প্রথমেই একটি জিমেইল আইডি প্রয়োজন হবে।কারন জিমেইল আইডি না থাকলে আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে কোন এপস ইন্সটল করতেই পারবেন না।
আপনার যদি একটি Gmail আইডি থাকে তবে আপনি অনায়াসেই গুগলের প্রায় সব সার্ভিস গুলো ব্যবহার করতে পারবেন।এছাড়াও ইমেইল তথা ইলেকট্রনিক মেইল আবিস্কারের মাধ্যমে মানুষের সাথে মানুষের যোগাযোগের পদ্ধতিটা পুরোপুরি বদলে গেছে।ইমেইলের মাধ্যমে মানুষ এক মূহুর্তেই দুনিয়ার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তের মানুষের সাথে তথ্যের আদান প্রদান করতে পারছে।
বিশেষ করে অফিসিয়াল চিঠিপত্র যেগুলো এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যেতে দিনের পর দিন সময় লাগতো সেখানে ইমেইলে মূহুর্তের মধ্যেই পৌঁছে যাচ্ছে।শুধু ডকুমেন্ট বা চিঠি নয় ইমেইলের মাধ্যমে ডাটা, ছবি,ভিডিও সহ যেকোন বড় বড় ফাইল পত্র মূহুর্তেই স্থানান্তর করা সম্ভব হচ্ছে।অনেক গুলো প্রতিষ্টান আছে যারা ইমেইল সেবা দিয়ে থাকে।
বেশীর ভাগ প্রতিষ্টান বিনা মূল্যেই ইমেইল আদান প্রদানের সুযোগ দেয়।তাদের মধ্য সবচেয়ে জনপ্রিয় হলো গুগলের জিমেইল।ওয়েব জগতে গুগলের একচ্ছত্র আধিপত্য,সুতরাং গুগলের নানা সুযোগ সুবিধা গুলো গ্রহন করতে একটি জিমেইল একাউন্ট থাকা আবশ্যক।জিমেইল ছাড়াও অনেক প্রতিষ্টান আছে যেমন ইয়াহু,হটমেইল অন্যতম।তবে বর্তমান সময়ে গুগলের জিমেইল সর্বাধিক জনপ্রিয় ইমেইল সার্ভিস।

 

জিমেইল আইডি তৈরি করবেন কিভাবেঃ-

জিমেইল এপস এবং ব্রাউজার ব্যবহার করে জিমেইল আইডি তৈরি করার নিয়ম প্রায় একই।দুটি মাধ্যম মোটামুটি একই ,সামান্য কিছু পার্থক্য রয়েছে।তথাপি আজ আমরা মোবাইল এপস অথবা যেকোন ব্রাউজারে জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো তা আলাদা ভাবে দেখে নিবো।

মোবাইলে জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবোঃ-

মোবাইল থেকে Gmail এপসটি খুলুন।+add account ক্লিক করুন।যেহেতু আমরা জিমেইল আইডি খুলতে চাচ্ছি সেহেতু Google সিলেক্ট করি।google sign in স্ক্রিন দেখতে পাবেন।নীচের দিকে Create account ট্যাবে ক্লিক করুন।দুটি অপশান দেখতে পাবেন For myself এবং To manage my business।যদি ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য জিমেইল একাউন্ট খুলতে চান তবে For myself সিলেক্ট করুন।আর যদি ব্যবসায়িক কাজে ব্যবহার করতে চান তবে To manage my business অপশানটি সিলেক্ট করুন।
এবার Create a Google Account উইজার্ডে নিজের Fast name এবং Last name বসিয়ে দিন।Next বাটনটি ক্লিক করুন।
Basic Information উইজার্ড টি দেখতে পাবেন।এখানে জন্ম তারিখ এবং লিঙ্গের বর্ণনা দিন।আবার Next বাটন টি ক্লিক করুন।
এবার Choose your Gmail address উইজার্ডে আপনার নতুন জিমেইল আইডি টির জন্য গুগলের তরফ থেকে কিছু সাজেশান দেখতে পাবেন।মনে রাখতে হবে যে,একই নামে দুটো জিমেইল আইডি হয় না।
জিমেইল আইডি অবশ্যই ইউনিক হতে হবে।সেজন্য নামের আগে পরে কিছু যোগ করে আপনাকে একটা ইউনিক জিমেইল আইডি বাছাই করতে হবে।
গুগলের সাজেশান পছন্দ না হলে নীচে Create your own Gmail address চেকবক্সে ক্লিক করুন।এখানে @gmail.com লিখাসহ একটি টেক্সট বক্স দেখতে পাবেন।এখানে আপনি আপনার নাম দিয়ে জিমেইল আইডি বানানোর চেষ্টা করতে পারেন।নাম দিয়ে Next বাটন চাপুন।
যদি আপনার দেওয়া নামটি ইউনিক না হয় তাহলে লাল অক্ষরে That username is taken,try another লেখা দেখতে পাবেন।সুতরাং আপনাকে অন্য একটি নাম দিয়ে দেখতে হবে ।
আর যদি আপনার দেওয়া নামটি ইউনিক হয় তাহলে Create a strong password উইজার্ড টি দেখতে পাবেন।এখানে আপনার জিমেইল আইডি জন্য একটি পাসওয়ার্ড দিতে হবে।password বক্সে পাসওয়ার্ড টি লিখুন confirm বক্সে আপনার দেওয়া পাসওয়ার্ডটি আবার টাইপ করে Next বাটন চাপুন।
Review your account info উইজার্ড দেখতে পাবেন।এখানেও Next বাটনটি চাপুন।এবার গুগলের privacy and Terms পেজটি দেখতে পাবেন,এখানে সর্ব নীচে I agree বাটনটি চাপতে হবে।
এবার ব্যবহারের জন্য আপনার সদ্য বানানো জিমেইল আইডি তৈরি।পরবর্তীতে ব্যবহারের জন্য আপনার Gmail আইডি এবং পাসওয়ারডটি কোন নিরাপদ স্থানে সংরক্ষণ করে রাখুন।

 

ব্রাউজার দিয়ে জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবোঃ-

ভাবছেন, ব্রাউজারে আবার জিমেইল আইডি কীভাবে খুলবো? মোবাইলের এপসে জিমেইল আইডি খোলা আর যেকোন ব্রাউজার দিয়ে জিমেইল আইডি খোলার প্রক্রিয়াটা মোটামুটি একই।সামান্য কিছু ভিন্নতা রয়েছে।প্রথমে ব্রাউজার ওপেন করুন।এড্রেসবারে gmail.com লিখে এন্টার দিন।sign in পেজ আসবে।
Add another account/create account ক্লিক করতে হবে।
Create your Google Account পেজ দেখতে পাবেন।Fast name এবং Last name দিতে হবে।তারপর আপনার Gmail আইডি নির্বাচন করতে হবে।
মনে রাখতে হবে যে,একই নামে দুটো জিমেইল আইডি হয় না।
জিমেইল আইডি অবশ্যই ইউনিক হতে হবে।সেজন্য নামের আগে পরে কিছু যোগ করে আপনাকে একটা ইউনিক আইডি বাছাই করতে হবে।
গুগলের সাজেশান পছন্দ না হলে নীচে Create your own Gmail address চেকবক্সে ক্লিক করুন।
এখানে @gmail.com লিখাসহ একটি টেক্সট বক্স দেখতে পাবেন।এখানে আপনি আপনার নাম দিয়ে জিমেইল আইডি বানানোর চেষ্টা করতে পারেন।
নাম দিয়ে Next বাটন চাপুন।যদি আপনার দেওয়া নামটি ইউনিক না হয়।তাহলে লাল অক্ষরে That username is taken,try another লেখা দেখতে পাবেন।
সুতরাং আপনাকে অন্য একটি নাম দিয়ে দেখতে হবে।এবার পাসওয়ার্ড দিন confirm বক্সে পাসওয়ার্ড রিটাইপ করুন।Next বাটন চাপুন,
Verify your phone number নামের পেজ দেখতে পাবেন। সেখানে আপনার ফোন নাম্বারটি দিন।সেই নাম্বারে ৬ ডিজিটের ভেরিফিকেশান কোড যাবে।
পরবর্তীতে যেটি ভেরিফিকেশানের জন্য প্রয়োজন হবে। আবার Next বাটনটি চাপতে হবে।এবার ভেরিফিকেশান বক্সে আপনার ফোনে গুগলের পাঠানো ৬ ডিজিটের কোডটি দিয়ে আবার Next বাটন চাপুন।Get more your number পেজ এ yes i am in বাটনটি চাপুন বা skip ও করতে পারেন।
এবার গুগলের privacy and terms পেজটি পাবেন সর্ব নীচে I agree বাটনটি চাপলে আপনার কাজ শেষ।এবার ইমেইল পাঠানো বা গুগলের যেকোন পরিসেবা ব্যবহার করার জন্য আপনার gmail id টি একেবারে প্রস্তুত।

 

শেষকথাঃ-

সময়টা এমন এসেছে যে,কেউ যদি বলে আমার কোন ইমেইল বা জিমেইল আইডি নেই তাহলে সেটা যেন সময়ের সাথে মানায় না।তাই এখন সকলের জন্য একটি ইমেইল বা জিমেইল আইডি থাকা প্রয়োজনীয় বিষয়। জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো প্রসঙ্গে কারো কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে করতে পারেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *