১২মিশালি

গণতন্ত্রের বিজয় দিবসে আ জ ম নাছির উদ্দীন

অজানা রহস্য বাংলাদেশ
রাজনীতিতে হতাশ হয়ে বিএনপি-জামায়াত প্রলাপ বকছে
রাজনীতিতে হতাশ হয়ে বিএনপি-জামায়াত আবোল তাবোল বকছে। ধর্মীয় অনুভূতিকে কাজে লাগিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করে, দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে বিএনপি-জামায়াত ও তাদের দোসররা যে ষড়যন্ত্রের অপচেষ্টা চালিয়েছে সরকার তা নস্যাৎ করে দিয়েছে। এখন তারা বলছে দেশে বাক  স্বাধীনতা নেই। ক্ষমতায় থাকাকালে গণতন্ত্রের কথা বলে বিএনপি-জামায়াত গণতন্ত্র হত্যার মহোৎসবে মেতে উঠেছিল। দেশের জনগণ আওয়ামী লীগকে নির্বাচিত করে গণতন্ত্রের পুনর্জন্ম দিয়েছে। আর তারা বলছে দেশে গণতন্ত্র জিম্মি হয়ে আছে। রাজনীতিতে হতাশ হয়ে তারা এখন প্রলাপ বকছে।

 

গণতন্ত্রের বিজয় দিবস উপলক্ষে আজ ৩০ ডিসেম্বর বিকালে লালদিঘীর পাড়স্থ চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ ভবনের সামনে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ এক আলোচনা সভার আয়োজন করে। সভায় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এসব কথা বলেন।

 

সভায় তিনি আরো বলেন, পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য আওয়ামীলীগ সরকার যখন বিশ্বব্যাংক থেকে অর্থঋণ সহযোগিতা চেয়েছিল। এই বিএনপি-জামায়াত বিশ্বব্যাংককে সেতু নির্মাণে দুর্নীতি হবে বলে ভুল বুঝিয়েছিল। তাদের কানকথায় বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্প থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেদিন অনমনীয় দৃঢ়তায় বলেছিলেন- দেশের জনগণের টাকা দিয়েই এই সেতু নির্মাণ করা হবে। আজ পদ্মা সেতু দৃশ্যমান বাস্তবতা। একে একে সেতুটির ৪১টি স্প্যান বসানো হয়েছে। এই সেতু চালু হলে উত্তর বঙ্গে নতুন শিল্প সম্ভাবনা সৃষ্টি হবে। লাখ লাখ কর্মসংস্থান হবে।

 

মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, আলতাফ হোসেন বাচ্চু, মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা শফর আলী, আইন বিষয়ক সম্পাদক শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *